বাংলাদেশ, শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

রোগ থেকে রুপচর্চা –খোসাতেই কামাল

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১৯ ১৪:১৭:০০ || আপডেট: ২০১৯-০৩-১৯ ১৪:১৭:০১

বাংলাধারা ডেস্ক »

সবজি ও ফল আমরা সকলেই খায়। কিন্তু কেবল মূল ফল বা সব্জিই নয় , তার খোসাতেও থাকে নানা পুষ্টিগুণ ।খনিজ ও ভিটামিনের যোগান দিতে খাসাও কাজে আসে । রান্না হোক বা রুপটান , ঘরোয়া কাজ হোক বা গৃহস্থালীর নানা কাজ – এসবেও কাজে আসবে এই খোসা । যদি জানা থাকে কোন ফল বা সব্জির খোসা কোন সমস্যায় ব্যবহার করলে সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে ।

আলুর খোসা :
ভিটামিন সি সমৃদ্ধ আলুর খোসা হালকা তেলে ভেজে এক ধরণের তরকারি বানাতো আগেকার যুগের মানুষ । তার স্বাদ যেমন অনবদ্য , তেমন ভিটামিন সি- এর উপকার পাওয়া যেত এই তরকারি থেকে । শুধু রান্নাতেই নয় , রুপচর্চাতেও রয়েছে এই খোসার ব্যবহার । চোখের নিচের কালি দূর করতে রয়েছে এর বিরাট ভুমিকা । আলু কেটে তার খোসাগুলি ফ্রিজে ১০-১৫ মিনিট রেখে , ঠান্ডা খোসাগুলিকে চোখের উপর ধরে রাখতে হবে । চোখ বুঝে থাকতে হবে কিছুক্ষণ, ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে চোখ ধুয়ে নিলেই মিলবে চোখের নিচের কালি থেকে মুক্তি ।

কলার খোসা :
রান্না থেকে জুতার যত্ন সবটাতেই রয়েছে কলার খোসার ভেল্কি । জুতো থেকে দাগ তুলতেও কলার খোসার ব্যবহার করা যায় । পাকা কলার খোসার ভিতরের অংশ জুতোর উপরে কিছুক্ষণ ঘষে পাতলা কাপড় দিয়ে মুছে নিলেই জুতো চকচকে হয়ে যাবে । দাঁতের হলুদ ভাব দূর করতেও কলার খোনসা কাজে লাগে। প্রতিদিন সকালে কলার ভিতরের অংশ দাঁতে ঘষে এরপর টুথপেস্ট দিয়ে দাঁত ব্রাশ করলে , সপ্তাহখানেক পর দাঁত হয়ে উঠবে ঝকঝকে সাদা । ত্বকের যত্নে এই খোসা অত্যন্ত উপযোগী। কলার খোসা বেটে তার সঙ্গে সামান্য মধু মিশিয়ে মুখে মাখলে মুখের কালো দাগ বা বলিরেখা দূর হবে সহজে।

লেবুর খোসা :
লেবু খাওয়ার পর খোসা ফেলে দেওয়ার মত ভুল আজ থেকে আর নয়। লেবুর খোসা রোদে শুকিয়ে নিতে হবে । এবার তা গুঁড়ো করো রেখে দেওয়া যাবে কোনও এয়ার টাইট পাত্রে। দুধ, মধু ও ওটসের সঙ্গে মিশিয়ে একটা ফেস মাস্ক তৈরি করে মুখ লাগালে উপকার পাওয়া যাবে । এই মাস্ক ত্বক থেকে তেল সরাবে এবং মুখে আলাদা জেল্লা আনবে ।বইয়ের আলমারিতে শুকনো লেবুর খোসা রাখলে পোকামাকড়ের উপদ্রব ঠেকানো যায়।মশা-মাছি-সহ অন্যান্য কীট-পতঙ্গের আনাগোনা যেখানে বেশি, সেখানেও রাখলে তাদের উপদ্রব কমে যাবে । লেবুর খোসা অম্বল বা গা বমি ভাব কাটাতেও কাজে আসে।

বাংলাধারা/এনএস/এমআর/বি

ট্যাগ :