বাংলাদেশ, শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯

হাটহাজারীতে দুই বাল্য বিবাহ ঠেকালেন ইউএনও

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-২০ ১৯:৩৯:৩১ || আপডেট: ২০১৯-০৩-২০ ১৯:৪৯:৩৯

বাংলাধারা প্রতিবেদন »

হাটহাজারীর মাহমুদাবাদ ও মেখলে দু‘দিনে দুই বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন ইউএনও। জানা যায়, হাটহাজারীর ফরহাদাবাদ ইউনিয়নে মাহমুদাবাদ এলাকায় খুশাল চৌধুরী বাড়িতে মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) নাহিদা সুলতানা নামের দশম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রীকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেন তার বাবা-মা। খবর পেয়ে সন্ধ্যা ৭ টায় স্থানীয় মেম্বার ও প্যানেল মেম্বারের সহায়তা নিয়ে বিয়ে বন্ধ করেন ইউএনও। নাহিদা, আবু আহমেদ ও বিলকিস আক্তারের সন্তান।

এদিকে, মেখলের ৪ নং ওয়ার্ডের ভোলার বাপের বাড়িতে বুধবার (২০ মার্চ) শাহরিয়া সুলতানা জেকি নামের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে দেয়ার খবর পেয়ে দুপুর সাড়ে ৩ টায় স্থানীয় চেয়ারম্যান ও মেম্বারের সহায়তায় তার বাসায় গিয়ে বিয়ে বন্ধ করেন ইউএনও। শাহরিয়া সুলতানা দক্ষিণ মেখল উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। সে জসিম উদ্দিন ও কামরুন নাহারের সন্তান।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন বাংলাধারাকে বলেন, দু‘দিনে দুটি বাল্য বিবাহ বন্ধ করেছি। তবে শাহরিয়া সুলতানার অভিভাবকরা জন্ম সনদ কাটাকাটি করে বয়স বাড়ানোর চেষ্টা করে, পরে অনলাইন চেক করলে তারা ধরা পড়ে যান। বাল্য বিবাহ দুটি বন্ধ করার সময় চেয়ারম্যান, মেম্বার ও প্যানেল মেম্বারের সহায়তা ছিল বলে জানান তিনি।

বাংলাধারা/এনএস/এমআর/টিএম/বি

ট্যাগ :