বাংলাদেশ, রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

লামায় ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ের বাসিন্দাদের সরিয়ে নিতে প্রশাসনের অভিযান

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-০৭ ২১:২০:৫২ || আপডেট: ২০১৯-০৭-০৭ ২১:২০:৫৮

লামা প্রতিনিধি »

চলতি বর্ষা মৌসুমে কয়েকদিনের টানা বর্ষনের ফলে বান্দরবানের লামায় পাহাড় ধসের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। শহরের বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারী বাসিন্দাদের নিরাপদে সরে যেতে অনুরোধ করেছেন লামা উপজেলা প্রশাসন।

কয়েকদিন যাবৎ সকাল থেকে রাত পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন জায়গায় তথ্য অফিসের সহায়তায় পাহাড়ের বাসিন্দাদের সতর্ক করতে মাইকিং করা হচ্ছে। এছাড়া উপজেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা পাহাড় ধসের আশঙ্কায় রয়েছে এমন বসতবাড়িতে গিয়ে তাদের সতর্ক করছেন এবং নিরাপদ স্থানে সরে যেতে অনুরোধ করেছেন। তাদের জন্য খোলা হয়েছে কয়েকটি আশ্রয়কেন্দ্র।

দুর্যোগকালীন সময়ে তাদের যাবতীয় ত্রাণ সহায়তা দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন, লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি ও লামা পৌরসভার মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম।

এদিকে রোববার সকাল থেকে ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ে বসবাসরত লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরে যেতে ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে পৌরসভার বেশ কয়েকটি স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন লামা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ইশরাত সিদ্দিকা।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মজনুর রহমান, লামা পৌরসভার কাউন্সিলর মো. রফিক, মো. সাইফুদ্দিন, লামা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আয়াত উল্লাহ সহ প্রমূখ।

লামা পৌরসভার হাসপাতাল পাড়া, চেয়ারম্যান পাড়া, কাটা পাহাড়, নয়া পাড়া, মিশন এলাকা, রাজবাড়ী, লাইনঝিরি, হরিণঝিরি, শিলেরতুয়া এলাকায় এই অভিযান চালানো হয়েছে।

একইভাবে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে অভিযান চালানো হবে বলে জানান, সহকারি কমিশনার (ভূমি) ইশরাত সিদ্দিকা। তিনি বলেন, প্রতিবছর বর্ষায় পাহাড় ধসে পড়ে প্রানহানির ঘটনা ঘটলেও সচেতনতার অভাবে লোকজন ঝুঁকিপূর্ণ স্থান হতে সরে যেতে চাচ্ছেনা।

উল্লেখ্য, টানা বর্ষণের ফলে পাহাড় হতে নেমে আসা পানিতে ভরে গেছে মাতামুহুরী নদী। গত কয়েকদিনের মত বৃষ্টি অব্যাহত থাকলে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে প্লাবিত হতে পারে লামা শহর।

বাংলাধারা/এফএস/এমআর

ট্যাগ :