বাংলাদেশ, বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯

বিশ্ববিদ্যালয় তদারকিতে ‘ইউজিস’কে কঠোর হতে নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৭ ১৭:৪৮:০৯ || আপডেট: ২০১৯-১০-১৭ ১৭:৪৮:১৬

বাংলাধারা ডেস্ক »

দেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালগুলোর তদারকিতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃপক্ষকে কঠোর হতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, দেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তদারকি করার ক্ষেত্রে নিয়মগুলো কঠোরভাবে অনুসরণ করুন। কোনোভাবেই আইনের বাইরে যাবেন না।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গেলে এ নির্দেশ দেন তিনি।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম। তিনি জানান, সাক্ষাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত বেসরকারি কলেজগুলোর প্রতিও নজরদারি বাড়ানোর ওপর প্রধানমন্ত্রী গুরুত্বারোপ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আইন তৈরির মাধ্যমে ইউজিসিকে শক্তিশালী করা হবে। তখন ইউজিসি’র সক্ষমতাও অনেকাংশে বাড়বে।

সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে নজরদারির ক্ষেত্রে কঠোরভাবে আইন অনুসরণ করা হয় উল্লেখ করে ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, ‘আমরা বিশ্ববিদ্যালগুলো পরিচালনার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের অনিয়মের অনুমতি দেবো না।’ এসময় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা মঞ্জুরি কমিশনের কর্মকাণ্ড সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে মনিটরিংয়ের ক্ষেত্রে ইউজিসি’র জনবলের ঘাটতির বিষয়টিও তুলে ধরেন অধ্যাপক শহীদুল।

তিনি বলেন, দেশে বর্তমানে ১৫৫টি সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে অন্তত ৩০টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনার ক্ষেত্রে অনিয়ম পাওয়া গেছে। দিন দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা বাড়লেও ইউজিসিকে আগের জনবল নিয়েই কাজ করতে হচ্ছে। এত বিপুলসংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয় পর্যবেক্ষণে কমিশনের জনবল বাড়াতে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গবেষণার জন্য একটি নীতিমালার রূপরেখা প্রণয়নের কাজ চলছে জানিয়ে ইউজিসি চেয়ারম্যান তাদের জন্য একটি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের দাবি জানান প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা শিক্ষকদের জন্য বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (বিপিএটিসি) মতো একটি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট চাই।’

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রীর সচিব সাজ্জাদুল হাসান এসময় উপস্থিত ছিলেন। বাসস।

বাংলাধারা/এফএস/এএ

ট্যাগ :