বাংলাদেশ, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯

প্রতিবন্ধী ছেলেকে মারধর, বিচার চাওয়ায় বাবাকে পিটিয়ে হ’ত্যা

প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৮ ১৪:৪৫:১৮ || আপডেট: ২০১৯-১০-১৮ ১৪:৪৫:২৫

 বাংলাধারা ডেস্ক » 

হবিগঞ্জে মানসিক প্রতিবন্ধী ছেলেকে মারধরের বিচার চাওয়ায় মতি মিয়া (৫৫) নামে এক কৃষককে বেধড়ক পিটিয়ে হ’ত্যার অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে সদর উপজেলার কালনী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মতি মিয়া ওই গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে।

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে মতি মিয়ার ছেলে মানসিক প্রতিবন্ধী রতন মিয়াকে একই গ্রামের ফুল মিয়ার ছেলে মারধর করে। রাত ৮টার দিকে মতি মিয়া এর বিচার নিয়ে ফুল মিয়ার কাছে যান। এ সময় রাস্তায় পেয়ে ফুল মিয়াকে ছেলেকে মারার বিষয়ে জিজ্ঞেস করেন মতি মিয়া। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় ফুল মিয়ার পক্ষে তার স্বজনরাও মতি মিয়াকে মারধর করেন। এতে মতি মিয়া মাটিতে পড়ে যান। খবর পেয়ে তার স্বজনরা ঘটনাস্থলে এসে মতি মিয়াকে উদ্ধার করে সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের চাচাতো ভাই ফরিদ মিয়া অভিযোগ করেন, মানসিক প্রতিবন্ধী ছেলেকে মারধর করার বিচার চাইতে গিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে বেধড়ক পিটিয়ে হ’ত্যা করেছে।

সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুক আলী জানান, তুচ্ছ বিষয় নিয়ে দুইজনের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি হয়েছে। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে তাকে সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তবে এ ব্যাপারে এখনও কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

সদর আধুনিক হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. শামীমা আক্তার জানান, মতি মিয়াকে হাসপাতালে মৃত অবস্থায় নিয়ে আসা হয়। নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন তাকে মারধর করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত ছাড়া এ ব্যাপারে কিছু বলা যাবে না। রাতে নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

বাংলাধারা/এফএস/টিএম

ট্যাগ :