বাংলাদেশ, বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯

মাটিরাঙ্গা শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক মিন্টু আটক

প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৮ ১৫:৩৯:০৭ || আপডেট: ২০১৯-১১-০৮ ১৫:৩৯:১৩

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি »  

খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা পৌরসভায় ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে মো:মিন্টু (৩৭) নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (৮ নভেম্বর ) সকাল ৯টার দিকে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের মধ্য মুসলিম পাড়ায় এই ঘটনা ঘটে।

ধর্ষক মো: মিন্টু ঢাকা মীরপুর পল্লবী ঢাকা উওর সিটি করর্পোরেশনের স্হায়ীবাসিন্দা মো:শাজাহান তালুকদারের পুএ।

স্হানীয় এলাবাসীর সূএে জানাযায়, মধ্যমুসলিম পাড়ার জহিরুল হক ৫বছর আগে মধ্যমুসলিম পাড়ায় বাক্ষ্রণবাড়িয়া থেকে এসে একটি জায়গা ক্রয় করে তার পরিবারপরিজন সবাইকে নিয়ে কিছুদিন ছিল বর্তমানে সে ঢাকায় গার্মেসে চাকুরি করেন। মাঝে মধ্যে তার পরিত্যাক্ত বাড়িতে ঢাকা থেকে বিভিন্ন সময়ে মহিলা ও পুরুষ নিয়ে আসতেন।এলাকাবাসি আজকের ধর্ষক মিন্টুকে দুই এক বছর আগে ঢাকা থেকে জহিরুল হকের বাসায় একজন মেয়েকে নিয়ে আসনে। গ্রামবাসী জিজ্ঞাসাকরলে বোন পরিচয় দেন।পরে জানতে পারেন তার বোন নয়।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে মধ্যমুসলিম পাড়ার জহিরুল হকের পরিত্যাক্ত বাড়ির সামনে অন্য শিশুদের সাথে খেলছিল ভুক্তভোগী শিশুটি। এক পর্যায়ে তার অন্য খেলার সাথীদের ধর্ষক মিন্টু চলে যেতে বলে পরে তার সাথীরা চলে যায় শিশুটিকে একা পেয়ে ওই শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। শিশুটি দৌড়ে গিয়ে তার মাকে বলেন মা স্হানীয় গ্রামবাসীদের সহযোগিতায় নিয়ে ধর্ষক মো:মিন্টুকে ধরে পেলেন। পরে থানা পুলিশ তাকে আটক করেন।

মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো:সামসুদ্দীন ভূইঁয়া আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন সকাল ৯টার দিকে মধ্য মুসলিম পাড়ার জহিরুল হকের পরিত্যাক্ত বাড়ীতে জহিরুল হকের বন্ধু মো:মিন্টু শিশুটিকে ধর্ষণের চেষ্টার অপরাধে তাকে আটক করা হয়। এ বিষয়ে শিশুটির মা বৃষ্টি বেগম বাদি হয়ে মাটিরাঙ্গা থানায় একটি নারীও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা রুজু করেন।

বাংলাধারা/এফএস/টিএম

ট্যাগ :