বাংলাদেশ, রোববার, ২৯ মার্চ ২০২০

বঙ্গবন্ধুর সাদা কংক্রিট ভাস্কর্য তৈরি করছে চসিক

প্রকাশ: ২০২০-০৩-১৬ ১৫:০২:৫১ || আপডেট: ২০২০-০৩-১৬ ১৫:০২:৫৩

বাংলাধারা প্রতিবেদন »

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) মুজিববর্ষ উপলক্ষে হোয়াইট সিমেন্টের কংক্রিট দিয়ে নির্মাণ করছে বঙ্গবন্ধুর সাদা কংক্রিটের ভাস্কর্য। সাড়ে ২৭ ফুট উঁচু এবং ৭ ফুট ব্যাসের বিশাল ভাস্কর্যটি তৈরি করতে প্রতিদিন কাজ করছেন ৭-৮ জন শিল্পী। সঙ্গে আছে আরো ৫-১০ জন শ্রমিক। এটি নির্মাণে ব্যয় হবে প্রায় ৪০ লাখ টাকা। বিউটিফিকেশনসহ মোট ব্যয় হবে প্রায় ৮৮ লাখ টাকা।

নগরীর হালিশহরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সড়কের (সাবেক পোর্ট কানেকটিং সড়ক) বড়পোল চত্বরে এটি বসানো হবে। ভাস্কর্যটি তৈরি হচ্ছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক আতিকুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে।

অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘চসিকের জন্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর বাস্তবধর্মী ঘরানার ভাস্কর্য তৈরি করা হচ্ছে। ঐতিহাসিক সাতই মার্চের  ভাষণকেই বেছে নেওয়া হয়েছে। ভাস্কর্যেহোয়াইট সিমেন্টের কংক্রিট ব্যবহার করা হচ্ছে। নিঃসন্দেহে অরজিনাল কালারে খুব সুন্দর দেখাবে এটি।’

তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে ৫০ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বেইজমেন্টসহ উচ্চতা হবে ২৬ ফুটের বেশি। পাঞ্জাবির কোণ এলাকায় ব্যাস ৭ ফুট। কয়েকটি ভাগে ভাস্কর্যটি টাইগারপাস থেকে নিয়ে বড়পোল এলাকায় চূড়ান্তভাবে স্থাপন করা হবে। এটি ১০০ বছরের বেশি সময় টিকে থাকবে।’

চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামশুদ্দোহা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর বিশাল একটি ভাস্কর্য তৈরি করা হচ্ছে। এটি বঙ্গবন্ধু সড়কের বড়পোল এলাকায় বসানো হবে। আসন্ন মুজিব বর্ষে চসিকের বছরব্যাপী কর্মসূচি চলাকালে এটি উদ্বোধন করা হবে।’ 

সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, পোর্ট কানেকটিং রোডে স্থাপনের জন্য বেইজসহ সাড়ে ২৭ ফুট উঁচু বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যটি তৈরি করছে চসিক। প্রায় ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ফেস বাই ফেস এটি ডেভলপ হবে। এক মাস সময় লাগবে। বিউটিফিকেশনসহ মোট ব্যয় হবে ৮৮ লাখ টাকা। মুজিব শতবর্ষ উদযাপন অনেক বড় সৌভাগ্যের বিষয়। বঙ্গবন্ধু জীবনে আপস করেননি। বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুর কাছে ঋণী। এটি দেশের সবচেয়ে বড় ভাস্কর্য। ডায়েস তৈরি করে সাদা সিমেন্টে ঢালাই হবে।

বাংলাধারা/এফএস/টিএম

ট্যাগ :