বাংলাদেশ, রোববার, ২৯ মার্চ ২০২০

শিশু তুহিন হত্যায় বাবা ও চাচার ফাঁসি

প্রকাশ: ২০২০-০৩-১৬ ১২:০৪:২১ || আপডেট: ২০২০-০৩-১৬ ১২:০৪:২৩

বাংলাধারা ডেস্ক »

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে শিশু তুহিন মিয়াকে বীভৎসভাবে খুনের চাঞ্চল্যকর ঘটনায় তার বাবা ও চাচাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া তার দুই চাচাকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। 

সোমবার (১৬ মার্চ) সকালে সুনামগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ওয়াহিদুজ্জামান শিকদার এই রায় ঘোষণা করেন।

রায়ে তুহিনের বাবা আবদুল বাছির (৪০) ও চাচা নাসির উদ্দিনকে (৩৫) মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে।

অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তার দুই চাচাকে খালাস দেয়া হয়। তারা হলেন- আবদুল মছব্বির (৪৫) ও জমসেদ আলী (৬০)।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১০ মার্চ) শিশু তুহিন হত্যা মামলায় তার চাচাতো ভাই কিশোর শাহরিয়ারকে আট বছরের আটকাদেশ দেন সুনামগঞ্জ নারী ও শিশু আদালতের বিচারক মো. জাকির হোসেন। এই আট বছর তাকে কিশোর সংশোধনাগারে রাখা হবে।

প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য ২০১৯ সালের ১৩ অক্টোবর রাতে দিরাই উপজেলার কেজাউড়া গ্রামের আব্দুল বাছিরের ছেলে তুহিনকে তার বাবা-চাচা ও ভাইয়েরা মিলে  নিমর্মভাবে হত্যা করেন। পরে তুহিনের মরদেহ বাড়ির পাশে একটি গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়।

এ ঘটনায় তুহিনের মা বাদী হয়ে দিরাই থানায় হত্যা মামলা করেন। পরে পুলিশ তদন্ত শেষে তুহিনের বাবা আব্দুল বাছির, চাচা নাছির উদ্দিন, জমসেদ, মোছাব্বির ও চাচাতো ভাই শাহরিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে ৩০ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

বাংলাধারা/এফএস/টিএম/এএ

ট্যাগ :