বাংলাদেশ, বুধবার, ৮ জুলাই ২০২০

কক্সবাজারে ‘লকডাউন’ বেড়েছে ৩০ জুন পর্যন্ত

প্রকাশ: ২০২০-০৬-২১ ১২:১২:১৯ || আপডেট: ২০২০-০৬-২১ ১২:১৪:১৭

কক্সবাজার প্রতিনিধি »

কক্সবাজারে তৃতীয় মেয়াদে আরও ১০দিন বাড়ানো হয়েছে লকডাউন। আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউনের সার্বিক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

এর আগে করোনা মোকাবেলায় কক্সবাজার পৌর এলাকাকে দেশের প্রথম রেড জোন ঘোষণা করে ৬ জুন হতে ২০ জুন পর্যন্ত। এতে ১৪ দিনের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছিল। শনিবার দিবাগত রাত ১২টায় সেই মেয়াদ শেষ হয়েছে।

লকডাউনের নির্ধারিত এ দিনগুলোতে করোনার সংক্রমণ আনুপাতিক হারে কমে আসে। ফলে করোনা নিয়ন্ত্রণে জেলা সিভিল সার্জনের আবেদনের প্রেক্ষিতে আরো ১০দিন মেয়াদ বাড়িয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা গণবিজ্ঞপ্তি আকারে প্রকাশ করেছেন কক্সবাজার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, করোনা আক্রান্ত রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা বিবেচনায় জেলা প্রশাসন গত ৬ জুন কক্সবাজার পৌর এলাকাকে দেশের প্রথম ‘রেড জোন’ ঘোষণা করে ১৪ দিনের জন্য দ্বিতীয় মেয়াদে লকডাউন করে। প্রশাসনের ঘোষণা অনুযায়ী শনিবার ছিল লকডাউনের শেষদিন। কিন্তু কক্সবাজারে দিন দিন করোনা আক্রান্ত রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা আশংকাজনক হারে বেড়েই চলছে।

শনিবার পর্যন্ত জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার ৯৯১ জন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৫ জন। মৃতদের মাঝে কক্সবাজার সদরে ১৭ জন রয়েছে। আর গত ২০ দিনেই আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বেড়েছে। তাই করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে কক্সবাজার পৌর এলাকায় লকডাউনের মেয়াদকাল আরো ১০ দিন বৃদ্ধি করে ৩০ জুন পর্যন্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক কর্তৃক ঘোষিত গণবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, কোভিড-১৯ সংক্রমণ কার্যকর ও অধিকতর দক্ষতার সাথে নিয়ন্ত্রণে লক্ষ্যে কক্সবাজারের সিভিল সার্জন কর্তৃক ২০ জুনে প্রেরিত স্মারক-সিএস/কক্স/প্রসা./করোনা ভাইরাস/২০২০/১০২৪৩ পত্রের অনুরোধের প্রেক্ষিতে ও সার্বিক বিবেচনায় কক্সবাজার পৌরসভায় লকডাউন আগামী ৩০ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।

‘লকডাউনের বর্ধিত মেয়াদকালে আগের মতই দেশের সার্বিক কার্যাবলী ও জনসাধারণের চলাচলের নিষেধাজ্ঞাসহ অন্যান্য শর্তাবলী পালন হবে। এছাড়া লকডাউন বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট সংস্থা, প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিবর্গ পূর্বের মত দায়িত্ব পালন অব্যাহত রাখবে।’

এদিকে, কক্সবাজার পৌর এলাকা ছাড়াও গত ৭ জুন চকরিয়া পৌর এলাকা ও ডুলহাজারা ইউনিয়ন, টেকনাফ পৌর এলাকা এবং উখিয়ার রত্নাপালং ইউনিয়নের কোটবাজার স্টেশনের আশপাশের ৩ টি ওয়ার্ড ও রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন কুতুপালং স্টেশনের আশপাশের এলাকাকে ‘রেড জোন’ ঘোষণা করে লকডাউন করা হয়েছে। পরে ৮ জুন লকডাউন করা হয় উখিয়া উপজেলা সদর স্টেশনের আশপাশের ৩ টি ওয়ার্ড। জেলায় ফের লকডাউন করা এসব এলাকার ‘লকডাউনের মেয়াদ’ আরো বৃদ্ধি করা হবে কিনা তা পরবর্তী পরিস্থিতি বিবেচনায় প্রশাসন সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানান ডিসি।

বাংলাধারা/এফএস/টিএম/এএ

ট্যাগ :