বাংলাদেশ, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০

খাগড়াছড়িতে করোনার উপসর্গ নিয়ে আনসার সদস্যের মৃত্যু

প্রকাশ: ২০২০-০৬-২২ ১৬:১৬:০০ || আপডেট: ২০২০-০৬-২২ ১৬:১৬:০২

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি »

পাহাড়ী জনপদ পার্বত্য খাগড়াছড়ি জেলাতে প্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগির সংখ্যা। প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে চিকিৎসক ও পুলিশসহ নতুন নতুন ব্যাক্তি। এবার খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় করোনার উপসর্গ নিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকা আনসার সদস্যের মৃত্যু হয়েছে।

আনসার সদস্য আবদুস সাত্তার (৫৩) দীঘিনালা ২৩ আনসার ব্যাটালিয়ন নায়েক পদে কর্মরত ছিলেন। তিনি পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার চতুরাডঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ১ পুত্র ও ২ কন্যা সন্তানের জনক।

দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার তনয় তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার (২২ জুন) সকালের দিকে তীব্র শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসার পথে তিনি মারা যান। তিনি আগে থেকেই শ্বাসকষ্টের রোগী ছিলেন।

জানা গেছে, এক সপ্তাহ আগে ছুটি শেষে কর্মস্থলে যোগদান করেন। যোগদানের পর থেকে তিনি কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। তার শরীরে করোনার উপসর্গ থাকায় গত ১৭ জুন তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। রিপোর্ট আসলে জানা যাবে তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন কিনা।

এর আগেও করোনার উপসর্গ নিয়ে খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেসন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন এক আনসার সদস্য মারা যায়। মৃত আনসার সদস্য মো. মফিজুল ইসলাম গত ১২ জুন সন্ধ্যায় সর্দি, জ্বর ও শ্বাস কষ্ট নিয়ে খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। এসময় তার শরীরে করোনার উপসর্গ থাকায় তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। পরদিন ১৩ জুন চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই আনসার সদস্য মারা যায়।

খাগড়াছড়ি জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে, খাগড়াছড়িতে গত ২৪ ঘণ্টায় মহালছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ ও দুই চিকিৎসকসহ একদিনে সর্বোচ্চ ৩৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে খাগড়াছড়িতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৬৫ জনে। আক্রান্তের অধিকাংশই পাহাড়ের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত পুলিশ সদস্য। বর্তমানে খাগড়াছড়ি জেলার বিভিন্ন উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া ৩৫জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

বাংলাধারা/এফএস/টিএম/এএ

ট্যাগ :