বাংলাদেশ, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০

পটিয়ায় অসহায় মহিলার ঘরে তালা ঝুলিয়ে দিল ইউপি সদস্য

প্রকাশ: ২০২০-০৬-২৩ ১৯:১০:৪১ || আপডেট: ২০২০-০৬-২৩ ১৯:১০:৪৩

পটিয়া প্রতিনিধি »

পটিয়া উপজেলায় অসহায় এক মহিলার বসত ঘরে জোর পূর্বক তালা ঝুলিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে কচুয়াই ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সদস্য ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী সাজেদা বেগমের বিরুদ্ধে।

অভিযোগ সূত্র জানায়, উপজেলার কচুয়াই আজিমপুর এলাকায় শাহিন আকতার নামের এক মহিলার সাথে স্বামীর পরিত্যাক্ত জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল তার সৎ ভাই মোহাম্মদ রাসেলের। সৎ ভাই রাসেল ও স্থানীয় হাফেজ আহমদের পুত্র মামুন গত ১৬ জুন রাতে ওই মহিলার ঘরের টিন খুলে ফেলে এবং ঘরের মাটি কেটে ফেলে দেয়। এই ঘটনায় পটিয়া থানায় শাহীন আকতার বাদী হয়ে মামুন ও সৎ ভাই রাসেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

অন্যদিকে অসহায় শাহিনা আকতারের সাথে একই এলাকার ওসমান কন্ট্রাক্টর (৫০), আহমদ নবী’র (৫০) সাথেও বিরোধ চলে আসছিল। তারাও গত ১৮ জুন অসহায় মহিলার বাড়ির ঘর ভাংচুর ও ঘরের মাটি খনন করার চেষ্টা করে এবং এতে বাঁধা দিলে শাহিন আকতারকে মারধর ও হামলা চালায়।

এ ঘটনায় পটিয়া থানায় অভিযোগ করা হয়। থানায় অভিযোগ করায় অসহায় শাহিনা আকতারের প্রতিপক্ষ ওসমান কন্ট্রাক্টরের পক্ষ হয়ে কচুয়াই ইউপির মহিলা মেম্বার সাজেদা বেগম ও তার ছেলে সুমন, সৎ ভাই রাসেল (২২) সাইফুর নেতৃত্বে পুনরায় এলোপাতাড়ি মারধর ও হামলা চালায়।

এ ঘটনায় ইউপি সদস্য সাজেদা বেগম ও তার ছেলে সুমনসহ কয়েক জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করা হয়। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পটিয়া থানার এস আই রবিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অভিযোগের সত্যতা পান।

এ বিষয়ে অসহায় মহিলা শাহিন আকতার বলেন, আমার সৎ ভাইয়েরা আমাকে মারধর করে বাড়ি থেকে জোরপূর্বক উচ্ছেদ করার চেষ্টা করছে। তাদেরকে সহযোগিতা করছে ইউপি সদস্য সাজেদা বেগম ও তার ছেলে। আমাকে তারাও মারধর করেছে। বিষয়টি আমি লিখিতভাবে পুলিশকে জানিয়েছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্যা সাজেদা বেগমের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ প্রসঙ্গে কচুয়াই ইউপি চেয়ারম্যান ইনজামুল হক জসিম বলেন, মহিলা মেম্বার সাজেদার আচর-আচণ ভালো না হওয়ায় পরিষদে না আসতে বলছি। ভুক্তভোগী মহিলা আমার কাছে আসলে মহিলার সার্বিক সহযোগিতা করবেন বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে পটিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ বোরহান উদ্দীন জানান, অসহায় মহিলার উপর কেউ যদি অন্যায়ভাবে নির্যাতন করে থাকে, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে তদন্তকারী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিবেন বলে জানান তিনি।

বাংলাধারা/এফএস/টিএম/এএ

ট্যাগ :