বাংলাদেশ, বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই ২০২০

অনলাইন ক্লাস চালু করতে ফ্রি ইন্টারনেট চায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়

প্রকাশ: ২০২০-০৬-২৭ ১৪:২৬:৪৮ || আপডেট: ২০২০-০৬-২৭ ১৪:২৬:৫০

বাংলাধারা ডেস্ক »

অনলাইন ক্লাস চালু করতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) কাছে ফ্রি ইন্টারনেট চেয়েছে দেশের ৪৬টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা। উপাচার্যদের দাবির সঙ্গে একমত হয়ে ইউজিসির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অনলাইন ক্লাসের জন্য শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ইন্টারনেট প্যাকেজ দেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, ‘সেশনজট থেকে বাঁচতে হলে শ্রেণি কার্যক্রম চালিয়ে নিতে হবে। সেক্ষেত্রে অনলাইন ক্লাসই হতে পারে সবচেয়ে বড় আশা। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যদের সঙ্গে গতকাল আমরা ভার্চুয়াল বৈঠক করেছি। ক্লাস চালু করতে তারা বিনামূল্যে ইন্টারনেট চেয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘গতকালের বৈঠকে আমরা শ্রেণি কার্যক্রম চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে লিখিত এবং ব্যবহারিক পরীক্ষা নেয়া হবে। এজন্য শিক্ষার্থীদের ইন্টারনেট প্যাকেজ দেয়া হতে পারে।’

এদিকে বৈঠক সংশ্লিষ্ট ইউজিসির এক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়,  শিক্ষক-শিক্ষার্থীর ল্যাপটপ ও স্মার্টফোন না থাকার বিষয়টি ইউজিসির কাছে তুলে ধরেন উপাচার্যরা। এছাড়া কম গতির ও উচ্চমূল্যের ইন্টারনেট নিয়েও তারা আপত্তি তোলেন। পরে উপাচার্যদের আশ্বাস দিয়ে ইউজিসি জানায়, ইন্টারনেট ফ্রি করে দিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাছে ইউজিসি’র পক্ষ থেকে চিঠি দেওয়া হবে।

ইউজিসির পক্ষ থেকে উপাচার্যদের বলা হয়, প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় যেন নিজেদের আইসিটি সেল থেকে শিক্ষকদেরকে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে। প্রশিক্ষণ শেষে শিক্ষকরা জুম বা গুগল ক্লাসরুম অ্যাপের মাধ্যমে ক্লাস নেবেন। এছাড়া ইউজিসির বিডিরেন প্লাটফর্মের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ক্লাস নিতে পারবেন। এই সময়ে শতভাগ শিক্ষার্থীদের অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের আওতায় আনার চেষ্টা করা হবে।

উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণের ঝুঁকির কারণে দেশে উচ্চশিক্ষায় থাকা ২৮ লাখ পড়ুয়া এখন ক্লাসের বাইরে। যেকারণে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে নতুন করে সেশনজট শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। সূত্র : সারাবাংলা

বাংলাধারা/এফএস/টিএম/এএ

ট্যাগ :