বাংলাদেশ, ২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ওষুধের বোতল নিয়ে বাড়াবাড়ি, রোহিঙ্গা যুবকের ছুরিআঘাতে কলেজ শিক্ষার্থী খুন

প্রকাশ:২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কক্সবাজার প্রতিনিধি »

কক্সবাজারে ওষুধের বোতল নিয়ে বাড়াবাড়িকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গা যুবকের উপর্যপুরি ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন এক কলেজ শিক্ষার্থী।

শনিবার (২১নভেম্বর) দুপুরে কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউনিয়নের দক্ষিণ মুহুরি পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জিঙ্গাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত সাবিলুস সালেহীন (১৮) ঝিলংজা ইউনিয়নের দক্ষিণ মুহুরি পাড়ার হাকিম উল্লাহর ছেলে এবং কক্সবাজার পলিকেটনিক কলেজের ছাত্র এবং ঘাতক মো. হোসেন (২২) দক্ষিণ জানারঘোনা এলাকার পুরোনো রোহিঙ্গা কলিমুল্লাহর ছেলে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য কুদরত উল্লাহ সিকদার ও প্রত্যক্ষকারীরা জানান, মুহুরি পাড়ায় ডাক্তার আজিজ ফার্মেসীতে ওষুধের একটি বোতল নিয়ে সালেহীন ও হোসেনের মধ্যে বাড়াবাড়ি হয়। স্থানীয় এক দোকানদার তাদের থামিয়ে দিয়ে দুজনকে দুদিকে চলে যেতে বলে। সালেহীন বাড়ির পথে হেটে বেশ কিছু দূর চলে যায়। ঘটনাস্থল থেকে আনুমানিক ২০০ মিটার দূরে দৌড়ে গিয়ে সালেহীনের গতিরোধ করে উপর্যপুরি ছুরিআঘাত করে পালিয়ে যায় রোহিঙ্গা যুবক হোসেন।

রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা দ্রুত সালেহীনকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান বলেন, এটি বর্বরোচিত ঘটনা। হত্যায় ব্যবহৃত ছুরিটি অত্যাধুনিক। এটা মেনে নেয়া যায় না। হত্যাকারিকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রাত ১০ টায় কক্সবাজার সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) বিপুল চন্দ দে জানান, হত্যার ঘটনায় মামলা করতে রাত ১০টা পড়যন্ত নিহতের পরিবারের কেউ থানায় আসেনি।

তবে ঘটনার পর পরই জিঙ্গাসাবাদের জন্য অভিযুক্তের বড় ভাই জুবায়ের ও রফিক, ফুফাতো ভাই ইয়াছিনসহ তিনজকে আটক করা হয়েছে। মূলহোতা হোসেনকেও আটকের চেষ্টা চলছে। নিহতের পরিবার এজাহার দিলে হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন করা হবে।

বাংলাধারা/এফএস/এআর

ট্যাগ :

close