বাংলাদেশ, ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মারিয়া পালমা, ফের ছোটগল্পে জাহেদ মোতালেব

প্রকাশ:২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাংলাধারা  প্রতিবেদন  »

সময়টা সন্ধ্যা। চেরাগী পাহাড় ঘিরে নামছে রাত। ফুলের দোকানগুলো আলো ছড়াচ্ছে কেবল। সুন্দর গন্ধ ভাসছে বাতাসে। এর মধ্যেই শোনা গেল মারিয়া পালমাকে। বাংলা সাহিত্যে নতুন একজন চরিত্র মারিয়া পালমা। পাঠক এখনো জানে না তার বয়স, সৌন্দর্য, হারিয়ে যাওয়ার গল্প।

ঔপন্যাসিক জাহেদ মোতালেব লিখেছেন মারিয়া পালমাকে। কিন্তু মারিয়াকে নিয়ে খোলাসা করেননি কিছু। এটুকু জানা গেল, একটা ছোটগল্পের বই হয়ে আসছে মারিয়া পালমা। চরিত্রটিকে শিরোনাম করেছেন তিনি। সঙ্গে আরও আটটি গল্প। যার সঙ্গে জড়িয়ে আছে তীব্র করোনাকাল।

পাঁচ-ছয় মাস পাণ্ডুলিপির সঙ্গে ছিলেন লেখক। বললেন, কর্ণফুলী নদীতে কয়েকশ বছর আগে একটা জাহাজ ডুবে গিয়েছিল। সেই জাহাজেই তো থাকতে পারে মারিয়া পালমা। এরপর যুক্ত হয়ে পড়তে পারে পর্তুগিজ জলদস্যু। আরকানী শাসন। আবহমান চট্টগ্রাম। এমনকি প্রকাশনী সংস্থা চন্দ্রবিন্দুও!

প্রচ্ছদ: রাজীব দত্ত

জাহেদ মোতালেবের তৃতীয় ছোটগল্পের বই ‘মারিয়া পালমা’। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন রাজীব দত্ত। এর আগে বেরিয়েছে খেলাবুড়া (২০১১), লাল পা (২০১৩)। দীর্ঘ সাত বছর পর ছোটগল্পে ফিরছেন তিনি। এতদিন কাটিয়েছেন উপন্যাসে। কয়েকটি উপন্যাস আছে তার। সর্বশেষ বইমেলায় বাতিঘর থেকে প্রকাশিত হয় ‘ধানশি’। এছাড়াও শিশুদের জন্য লিখেছেন তিনি। প্রকাশের অপেক্ষায় আছে আরেকটি বই ‘গুপ্তধন।’

প্রচ্ছদ ছবি: ওমর ফারুক

বাংলাধারা/এফএস/এআর

ট্যাগ :

close