বাংলাদেশ, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু ২২ জুন

প্রকাশ:২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাংলাধারা প্রতিবেদন  »

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) স্নাতক (সম্মান) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২২ জুন থেকে শুরু হবে, চলবে ৮ জুলাই পর্যন্ত। 

সোমবার ( ২২ ফেব্রুয়ারি ) বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য শাখা থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে চবির প্রথম বর্ষে ভর্তি নিয়ে ডিন’স কমিটির চতুর্থ সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়, প্রথম ধাপে আগামী ২২ থেকে ২৪ জুন ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। দ্বিতীয় ধাপে ভর্তি পরীক্ষা চলবে ২৮ জুন থেকে ১ জুলাই পর্যন্ত। তৃতীয় ধাপে ৫ জুলাই থেকে শুরু ভৃর্তি পরীক্ষা চলবে ৮ জুলাই পর্যন্ত।

প্রসঙ্গত, ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের জন্য যোগ্যতা বাড়ানোর প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রতিটি ইউনিটেই আবেদনের ন্যূনতম জিপিএ অন্তত শূন্য দশমিক ৫০ বাড়ানো হবে। এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল ‘অনেক ভালো’ হওয়ায় ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে আবেদনের যোগ্যতায় এই পরিবর্তন আনা হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

প্রাথমিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদনের নির্ধারিত যোগ্যতা হল- ‘এ’ ও ‘সি’ ইউনিটে আবেদনের যোগ্যতা এসএসসি ও এইচএসসি মিলিয়ে জিপিএ- ৮.০০। অন্যদিকে ‘ডি’ ইউনিটের ক্ষেত্রে জিপিএ ৭.৫০ থাকতে হবে। ‘ডি১’ উপ-ইউনিটের যোগ্যতা জানা যায়নি।

২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ‘এ’ ইউনিটে আবেদনের যোগ্যতা ছিল জিপিএ-৭.৫। ‘বি’ ও ‘বি-১’ উপ ইউনিটের যোগ্যতা ছিল বিজ্ঞান ও বাণিজ্য বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য জিপিএ-৭ ও মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য জিপিএ-৬.৫। ‘সি’ ইউনিটে আবেদনের যোগ্যতা ছিল জিপিএ-৭.৫। ‘ডি’ ইউনিটের আবেদনের যোগ্যতা ছিল জিপিএ-৭। ‘ডি১’ উপ-ইউনিটের আবেদনের যোগ্যতা ছিল জিপিএ-৬।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৮টি বিভাগ ও ৬টি ইনস্টিটিউট রয়েছে। গত বছর ৪টি ইউনিট ও ২টি উপ-ইউনিটের ভর্তি কার্যক্রম হয়েছে। ৪৮টি বিভাগ ও ৬টি ইনস্টিটিউটে ৪ হাজার ৯২৬টি আসনে শিক্ষার্থীরা ভর্তি হন। প্রতি আসনে আবেদন করেছিলেন ৫২ জন শিক্ষার্থী। ভর্তি পরীক্ষা দুই শিফটে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই নেওয়া হয়েছে।

বাংলাধারা/এফএস/এআর

ট্যাগ :

close