বাংলাদেশ, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রাঙ্গুনিয়ায় সাত বসতঘর পুড়ে ছাই, এক শিশুর মৃত্যু

প্রকাশ:২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি  »

রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পারুয়া ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৭টি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এসময় আগুনে দগ্ধ হয়ে আড়াই বছর বয়সী এক শিশু মারা গেছেন।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার কাটাখালী মধ্যম নাথ পাড়া এলাকায় সন্ধ্যা দিকে এই ঘটনা ঘটে। দগ্ধ হয়ে মারা যাওয়া শিশুটির নাম বিনায়েত নাথ। সে ওই এলাকার বিধান নাথের শিশুপুত্র।

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সন্ধ্যা দিকে একটি বসতঘরে হঠাৎ দাউদাউ করে আগুন জ্বলে ওঠে। মুহূর্তের মধ্যে তা আশেপাশের বসতঘরে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় সবাই দ্রুত ঘর থেকে বের হয়ে এলেও শিশুপুত্র বিনায়েত নাথ বের হতে পারেন নি। এতে ঘরের ভেতরেই দগ্ধ হয়ে মারা যায় শিশুটি।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয় বাসিন্দাদের সহযোগিতায় দেড় ঘণ্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এরপর পুড়ে যাওয়া শিশুটিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত শিশুর পিতা বিধান নাথ বলেন, ঘরে আগুন লাগার পর চারদিক ধোঁয়ায় অন্ধকার হয়ে যায়। এ সময় পরিবারের সদস্যরা যে যেভাবে পেরেছেন ঘর থেকে বাইরে বের হয়ে এসেছেন। তবে শিশুটি বের হতে পারেননি।

স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইলিয়াছ তালুকদার বলেন, বসতঘরে আগুন লেগে এক শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। পুড়ে গেছে বিধান নাথ, বিকাশ নাথ, প্রদীপ নাথ, সুজিত নাথ, সুকুমার নাথ, ঝন্টু নাথ ও টুন্টু নাথ’র মালিকানাধীন ৭টি বসতঘর। আগুন লাগার পর ঘর থেকে কেউ কোনো কিছুই বের করতে পারেন নি। এতে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, আসবাবপত্রসহ প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

রাঙ্গুনিয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কার্যালয়ের স্টেশন কর্মকর্তা লিটন হাওলাদার বলেন, স্থানীয় বাসিন্দাদের ভাষ্য ও আলামতের ভিত্তিতে ধারণা করা হচ্ছে, রান্নাঘরের চুলার আগুন থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। এতে ৭টি বসতঘর পুড়ে গেছে। দগ্ধ হয়ে মারা গেছে এক শিশু৷ শুষ্ক মৌসুম হওয়ায় আগুন দ্রুত চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে।

বাংলাধারা/এফএস/এআর

ট্যাগ :

close