বাংলাদেশ, ১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্ভারে ত্রুটি : রোববার স্বাভাবিক হতে পারে ব্যাংক লেনদেন

প্রকাশ: শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১

বাংলাধারা ডেস্ক :

লকডাউনে ব্যাংক বন্ধ থাকবে না খোলা—এ নিয়ে ধোঁয়াশা ছিল গত সপ্তাহের শুরু থেকে।সরকারের নির্দেশনা আমলে নিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছিল ১৪ এপ্রিল থেকে ব্যাংক বন্ধথাকবে টানা আটদিন।

যদিও গ্রাহকদের চাপের মুখে বন্ধের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে ব্যাংক খোলা রাখা হয়েছে। কিন্তু পুরো সপ্তাহেই হয়রানি আর ভোগান্তির শিকার হয়েছেন গ্রাহক ও ব্যাংক কর্মকর্তারা।

অনেক নাটকীয়তার পর ব্যাংক খোলা থাকলেও বৃহস্পতিবার আন্তঃব্যাংক চেক নিষ্পত্তি ও অনলাইনে অর্থ লেনদেন করতে পারেননি গ্রাহকরা ফলে লকডাউনের ভোগান্তি ঠেলে যেসব গ্রাহক ব্যাংকে গিয়েছিলেন, তারা হতাশ হয়ে ফিরেছেন। উপচে পড়া ভিড় ঠেলে যেসব গ্রাহক গত মঙ্গলবার ব্যাংকে চেক জমা দিয়েছিলেন, সেসব চেকও নিষ্পত্তি হয়নি

এ নিয়ে গ্রাহকরা যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, তেমনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ব্যাংকও।

অনলাইনে আন্তঃব্যাংক চেক নিষ্পত্তি হয় বাংলাদেশ অটোমেটেড ক্লিয়ারিং হাউজের (বিএসিএইচ) মাধ্যমে। আর গ্রাহকরা বাংলাদেশ ইলেকট্রনিক ফান্ডস ট্রান্সফার নেটওয়ার্ক (বিইএফটিএন) ব্যবহার করেও এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে টাকা পাঠান। কিন্তু মঙ্গলবার থেকে অর্থ লেনদেনের এ দুটি প্রধান মাধ্যমই অকার্যকর হয়ে আছে। একই সঙ্গে অকার্যকর হয়ে গেছে আন্তঃব্যাংক রেপো ও কলমানি লেনদেনের এমআই মডিউলও। দেশের পেমেন্ট ব্যবস্থার প্রধানতম তিনটি মাধ্যম অকার্যকর থাকায় গ্রাহক ও ব্যাংক কর্মকর্তাদের ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ডাটা সার্ভারে ত্রুটি ও সমন্বয়হীনতার কারণে এ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, ব্যাংক বন্ধ থাকবে না খোলা—এ নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতার কারণে লেনদেন ব্যবস্থায় সংকট হয়েছে। পাশাপাশি বিটিসিএলের অপটিক্যাল ফাইবার লাইনেও ত্রুটি ধরা পড়েছে। আগামী রোববার থেকে সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে যাবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

বাংলাধারা/এফএস/এআই

ট্যাগ :

close