বাংলাদেশ, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মহাটেনশনে রেলের সরঞ্জাম বিভাগ

প্রকাশ: বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

মাকসুদ আহম্মদ, বিশেষ প্রতিবেদক »

রেলের জনবল কাঠামো ৪০ হাজার থেকে ৪৭ হাজারে উন্নীত হচ্ছে। নতুন পদ সৃষ্টির মাধ্যমে জনবল কাঠামো পরিবর্তনের কাজ করছে রেল মন্ত্রণালয়। কিন্তু সরঞ্জাম বিভাগে কর্মকর্তা-কর্মচারীর পদ বিলুপ্তির সংখ্যা অনেক বেশি। ফলে বিলুপ্ত পদের বিপরীতে নতুন পদ সৃষ্টি হলেও কার্যক্ষেত্রে চরম ব্যাঘাত সৃষ্টির আশঙ্কা করছেন কর্মকর্তারা। কারণ রেলের খালাসি পদের লোক দিয়ে যেমন দাফতারিক কর্মসম্পাদন করা হয় তেমনি ওয়েম্যান দিয়ে স্টেশনে সিগন্যালের কাজ সম্পাদন করার মত ঘটনাও ঘটছে। ফলে রেল দুর্ঘটনায় যাত্রী নিহতসহ কোচ ও ইঞ্জিন ক্ষতিগ্রস্তের ঘটনা বিরল নয়। 

রেল ভবন সূত্রে জানা গেছে, পাহাড়তলীস্থ সরঞ্জাম বিভাগের শিপিং শাখায় মোট জনবল কাঠামো ছিল ৪শ জন। এরমধ্যে থেকে বিলুপ্ত করা হচ্ছে ২৯৮ জনকে। নতুন করে সিনিয়র সহকারী নিয়ন্ত্রক একটি ক্যাডার পদ সৃজন করা হচ্ছে। অপরদিকে, সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক ক্যাডার পদটি বিলুপ্ত করার পাশাপাশি সহকারী স্টোর কিপার ৩টি, ওয়ার্ড কিপার ১৫টি, সহকারী পরিদর্শক ৪টি, উচ্চমান সহকারী ৬৩টি, মেটেরিয়াল চেকার ৪৬টি, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর ১৭টি, খালাসি ৯০টি, অফিস সহায়ক ১৪টিসহ বিভিন্ন পদে ২৯৮ জনবল কাঠামোর পদ বিলুপ্ত করা হচ্ছে। এ শাখায় মাত্র ১০৩ জন জনবল কাঠামো বাস্তবায়ন করা হচ্ছে বলে রেল মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

সরঞ্জাম বিভাগের আওতায় থাকা প্রিন্টিং শাখায় মোট ২৭৯ জন কর্মরত থাকার কথা। নতুন করে এ শাখায় ৯টি পদ সৃজনের প্রস্তাবনা দেয়া হলেও সুপারিশ করা হয়েছে ৭টি। তবে বিলুপ্ত করা হচ্ছে ১৮২ টি পদ। রেলের নতুন জনবল কাঠামো কার্যকর হলে এ বিভাগে কর্মরত থাকবে মাত্র ১০৪ জন। বিলুপ্ত পদগুলোর মধ্যে সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক এর দুটি পদ বিলুপ্তসহ প্রিন্টার গ্রেড-১ এর ৫টি পদ, কম্পোজিটর গ্রেড-২ এর ১৪টি পদ, প্রিন্টার গ্রেড-২ এর ১৩টি পদ, সহকারী মেশিনম্যান ৭টি পদ, খালাসি ১২টি পদসহ ১৮২টি পদ বিলুপ্ত হবার কথা রয়েছে। এদিকে, ইনভেন্ট্রি কন্ট্রোল শাখায় ২২ জন কর্মরত থাকার কথা থাকলেও তা কমিয়ে ২০ জনে আনা হচ্ছে। সিনিয়র সহকারী পরিচালকের একটি ক্যাডার পদ নতুনভাবে সৃজন করা হচ্ছে। এ শাখায় স্টোর কিপার ১টি ও পরিদর্শক ২টি পদ বিলুপ্ত করার কথা রয়েছে।  তিনটি পদ বিলুপ্তির পর এ শাখায় কর্মরত থাকবে ২০ জন।

অন্যদিকে, পাহাড়তলীস্থ প্রধান সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রণ দফতরের লোকবল সংখ্যা ১৮৬ জন ঊর্ধ্বতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী/সরঞ্জাম দুটি পদ সৃষ্টি করার প্রস্তাবনা থাকলেও বিলুপ্ত করা হচ্ছে সহকারী প্রশাসনিক কর্মকর্তা ২ জন, প্রধান সহকারী ৪ জন, উচ্চমান সহকারী ৫৫ জন, কম্পিউটার অপারেটর ২ জন, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর ৪ জন, অফিস সহায়ক ১৮ জন, পরিচ্ছন্নতা কর্মী ১ জনসহ মোট ৮৬টি পদ বিলুপ্ত করা হচ্ছে। ফলে এ দফতরের জনবল কাঠামো হবে ১০২ জন।

পাহাড়তলীস্থ ইন্সপেকশন শাখায় জনবল কাঠামো ছিল ১৫৬ জন। লিস্টার ট্রাক ড্রাইভারের একটি পদ নতুন সৃজন করে ৯৪টি পদ বিলুপ্ত করা হচ্ছে। বিলুপ্তকৃত পদের মধ্যে রয়েছে স্টোর কিপার ২ জন, সহকারী স্টোর কিপার ২ জন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী (সরঞ্জাম) ১ জন, প্রধান সহকারী ১ জন,  উচ্চমান সহকারী ১৭ জন, মেটেরিয়াল চেকার ৪ জন, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর ৪ জন, একজন করে টিনস্মিথ, কার্পেন্টার, গ্রিজার, পেকার, লেটারম্যান, লেবেলম্যান, দফতরি, ক্লিনার। এছাড়াও ২ জন লেবার সর্দার, ২ জন রেকর্ড সাপ্লাইয়ার, ৪৫ জন খালাসি, ৫ জন অফিস সহায়কসহ ৯৪টি পদ বিলুপ্ত করে ১৫৬ জনবল থেকে কমিয়ে ৬৩ জনে নামিয়ে আনা হচ্ছে।

অপরদিকে, পাহাড়তলীস্থ ডিজেল বিভাগের সরঞ্জাম শাখায় কর্মরতের সংখ্যা ছিল ৩১ জন। সিনিয়র সরঞ্জাম সহকারী নিয়ন্ত্রক একটি ক্যাডার পদ সৃষ্টি করে সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রকের একটি পদ বিলুপ্ত করা হচ্ছে। এছাড়াও একজন উচ্চমান সহকারী ও একজন অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর ২টি পদ, লেবার সর্দার ২টি পদসহ মোট ৪টি বিলুপ্ত করা হচ্ছে। তবে এ বিভাগে কর্মরতের সংখ্যা হবে ৩০ জন। অপরদিকে, ঢাকাস্থ ডিজেল শাখার সরঞ্জাম বিভাগে ৪৩ জন কর্মরত থাকার কথা থাকলেও সিনিয়র সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক একটি পদ সৃজন করে ৯টি পদ বিলুপ্ত করা হচ্ছে। এর মধ্যে সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক ১টি ক্যাডার পদ বিলুপ্ত করা হচ্ছে। বিলুপ্তির পর কর্মরতদের সংখ্যা দাঁড়াবে ৩৫ জনে।

পার্বতীপুরস্থ ডিজেল শাখায়  সরঞ্জাম বিভাগে ৩৩টি পদ থাকলেও সিনিয়র  সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রকের একটি ক্যাডার পদ নতুন করে সৃষ্টি করা হচ্ছে। তবে সহকারী সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক একটি পদ বিলুপত করাসহ ১৫টি খালাসি পদ বিলুপ্ত করা হচ্ছে। এ দফতরে মোট বিলুপ্ত পদের সংখ্যা ৪টি। নতুন জনবল কাঠামো বাস্তবায়ন হলে এ শাখায় কর্মরত থাকবে ৩০ জন। পার্বতীপুরের কেন্দ্রীয় লোকোমোটিভ কারখানা (কেলোকা) জনবল কাঠামো ছিল ৪৮ জন। সিনিয়র সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক ও কম্পিউটার অপারেটর এক একটি পদ নতুনভাবে সৃষ্টি করা হলেও বিলুপ্ত করা হচ্ছে সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক ১ জন, উচ্চমান সহকারী ২ জন, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর ২ জন, অফিস সহায়ক ১ জন ও খালাসি একজনসহ ৭ জনকে বিলুপ্ত করে জনবল কাঠামো করা হচ্ছে ৪৩ জন।

বাংলাধারা/এফএস/এফএস

ট্যাগ :

close