গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার নিবন্ধিত। রেজি নং-০৯২

রেজিঃ নং-০৯২

ডিসেম্বর ১, ২০২২ ৪:৩৩ অপরাহ্ণ

ঢাকায় নাচলেন না নোরা ফাতেহি

বিনোদন ডেস্ক »

অবশেষে ঢাকায় এলেন, মঞ্চেও উঠলেন। দর্শক সারিতে তখন ‘নোরা নোরা’ বলে চিৎকার। গানের তালে তালে এলেন সবার সামনে তবে নাচের কোনো পরিবেশনায় অংশ নিলেন না। অনেক আলোচনার জন্ম দিয়ে শুক্রবার ঢাকায় আসা বলিউড অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী নোরা ফাতেহি শুধু অনুষ্ঠানের পুরস্কার বিতরণী অংশেই সীমাবদ্ধ থাকলেন।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার মঞ্চে ওঠার অল্প কিছু সময় পরই পুরস্কারের আনুষ্ঠানিকতাটুকু সেরে তিনি যখন নেমে যান তখন দর্শক সারিতে হতাশাই ফুটতে দেখা গেছে।

মঞ্চে এসেই নোরা দর্শকের দিকে ছুঁড়ে দিলেন উড়ন্ত চুমু। নারীদের উদ্দেশ্যে বললেন, ‘নিজের স্বপ্ন পূরণে সাহস এবং শক্তি নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।’

এ বলিউড অভিনেত্রীর মঞ্চে আসার আগে দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলতে থাকে ‘উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক অনুষ্ঠানের পুরস্কার বিতরণ ও ফ্যাশন শো।

সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় কয়েকজন নারীকে পুরস্কৃত করা হয় এ অনুষ্ঠানে। এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, বিটিভির মহাপরিচালক সোহরাব হোসেনসহ অনেকে।

নোরা ফাতেহি অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ হলেও মঞ্চ মাতিয়েছেন বাংলাদেশি শিল্পীরা।

সন্ধ্যা ৭টায় ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’ গান দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। এই গানের সঙ্গে নাচে অংশ নেন দেশের শিল্পীরা। পরে ফ্যাশন শো’তে দেশী মডেলরা র‍্যাম্পে হাঁটেন। তাদের মধ্যে ছিলেন দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূজা চেরীও।

মঞ্চে নববধূ রূপে দেখা যায় পূজাকে। নায়িকা পূজা চেরী বলেন, ‘এমন একটি অনুষ্ঠানে আসতে পেরে ভালো লাগছে।’

এরপর দর্শকের দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ‘দিলবার’ গানের তালে মঞ্চে আসেন বলিউড অভিনেত্রী, নৃত্যশিল্পী নোরা ফাতেহি। দেশের নৃত্যশিল্পীরা গানের তালে তালে মঞ্চে স্বাগত জানান তাকে।

মঞ্চে এসে নোরা বললেন, ‘দ্বিতীয়বারের মত ঢাকায় এসে আপনাদের ভালোবাসায় আমি মুগ্ধ। বাংলাদেশে আমি বারবার আসতে চাই।’

সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শেষে গ্লোবাল অ্যাচিভার্স অ্যাওয়ার্ড ২০২২ প্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বলিউড অভিনেত্রী।

নোরা ফাতেহি কেন মঞ্চে এসেও পারফরমেন্সে অংশ নিলেন না? জানার জন্য একাধিকবার ফোন করলেও অনুষ্ঠানের ‘অন্যতম’ আয়োজক ইশরাত জাহান ফোন ধরেননি।

এবার ঢাকায় আসা নিয়ে অনেক জটিলতা ও আলোচনার পর শুক্রবার দুপুর ২টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামেন তিনি। সেখান থেকে ক্ষিলক্ষেতে লা মেরিডিয়ান হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয় এ বলিউড অভিনেত্রীকে।

এসময় সাংবাদিকরা অপেক্ষায় থাকলেও তখন আয়োজকরা জানান নোরা পরে কথা বলবেন।

কাতার বিশ্বকাপের ‘থিম সংয়ে’ নোরা ফতেহির নাচ তার কদর আরও বাড়িয়েছে।

তখন অনুষ্ঠানের অন্যতম আয়োজক ইশরাত জাহান বলেছিলেন, ‘নোরা ফাতেহি ৭ ঘণ্টার বিমান জার্নি করে ঢাকায় এসেছেন। এজন্য একটু ক্লান্ত। সন্ধ্যার অনুষ্ঠানের জন্য তার প্রস্তুতিও নিতে হবে। ফলে সাংবাদিকদের সামনে আসতে চাইছেন না। আমরাও শিল্পীর মতামতকে গুরুত্ব দিচ্ছি। তিনি সরাসরি অনুষ্ঠানে গিয়ে সবার সামনে কথা বলবেন।’

অনুষ্ঠানে এসেও নাচলেন না এবং সাংবাদিকদের সাথে কথাও বললেন না। দর্শকদেরও অনেকটাই হতাশ করেই মঞ্চ থেকে বিদায় নিলেন তিনি।

ঢাকায় অনুষ্ঠান করে কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার কথা নোরার; সেখানে থিম সংয়ে তার নাচার কথা রয়েছে।

এ দফায় এ অভিনেত্রী নৃত্যশিল্পীর ঢাকায় আসা নিয়ে শুরু থেকেই জটিলতা তৈরি হয়। ডলার সঙ্কটের কারণ দেখিয়ে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় দুবার তার ঢাকায় আসার অনুমতি আটকে দেয়। পরে তথ্য মন্ত্রণালয় চার শর্ত বেঁধে দিয়ে ঢাকায় শুটিংয়ের অনুমতি দেয়।

তাতে বলা হয়, এক দিন বাংলাদেশে অবস্থান করে শুধু ডকুমেন্টরির শুটিংয়ে অংশ নিতে পারবেন এ বলিউড তারকা। এর বাইরে আর কোনো কাজ বা অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবেন না।

আর নোরার পেছনে যাবতীয় খরচের উপর ৩০ শতাংশ হারে দেওয়া অগ্রিম কর সরকারকে দিতে হবে। তা না হলে প্রামাণ্যচিত্রটি সেন্সর ছাড়পত্র দেওয়ার জন্য বিবেচনায় আনা হবে না বলেও শর্তে উল্লেখ করা হয়।

এর মধ্যে গত রোববার এনবিআর এক চিঠিতে জানায়, তারা নোরা ফাতেহির অনুষ্ঠানের বিষয়ে কিছু জানে না, আয়োজকরা উৎসে করও পরিশোধ করেননি।

অনুষ্ঠানের আগের দিনও নোরার ঢাকায় আসা নিয়ে অনিশ্চয়তার গুঞ্জন ছড়ায়। তবে শেষ পর্যন্ত তাকে ঢাকায় আনতে পেরে আয়োজকরা খুশি, ধন্যবাদও জানিয়েছেন সরকারকে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on telegram
Telegram
Share on skype
Skype
Share on email
Email

আরও পড়ুন

অফিশিয়াল ফেসবুক

অফিশিয়াল ইউটিউব

YouTube player