logo
রাউজানে বৃদ্ধ বাবাকে ছুরির মুখে জিম্মি করে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, ৮ ডাকাত র‍্যাবের জালে
#

বাংলাধারা প্রতিবেদক »

চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলায় প্রবাসীর বাড়িতে বৃদ্ধ বাবাকে ছুরির মুখে জিম্মি করে ১২৮ ভরি স্বর্ণ ডাকাতির ঘটনায় ৮ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এসময় স্বর্ণ বিক্রির ৩০ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে চান্দগাঁও ক্যাম্পে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‌্যাব-৭ অধিনায়ক লে. কর্নেল এম এ ইউসুফ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মো. মুসা (৩০), সাইদুল ইসলাম (৩০), খোরশেদুল আলম (২৮), সাজ্জাদ হোসেন (২৭), মো. বাপ্পী (২৬), সজল শীল (২৭) ও মো. ইদ্রিস (৩৪) এবং বিপ্লব চন্দ্র সাহা (৩৯)।

র‍্যাব জানায়, প্রবাসী সরোয়ার চৌধুরী গত ২৭ অক্টোবর মামাতো বোনের বিয়ে উপলক্ষে দেশে আসলে কিছু স্বর্ণ আনেন। বৃদ্ধ বাবাকে ঘরে রেখে তিনি পরদিন সবাইকে নিয়ে যান বিয়েতে। সেই সুযোগে গত ২৮ অক্টোবর সরোয়ারের বাড়ির গ্রিল কেটে প্রবেশ করে ডাকাত দল। এসময় ডাকাতরা সরোয়ারের বৃদ্ধ বাবাকে বেঁধে ১২৮ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও স্বর্ণবার, নগদ ৫ লাখ টাকা এবং বিভিন্ন ধরনের মালামাল লুট করে।

লে. কর্নেল এম এ ইউসুফ জানান, সরোয়ারের করা মামলার ছায়া তদন্ত করতে গিয়ে সিসি ক্যামেরার ফুটেজে খুঁড়িয়ে হাঁটা এক ব্যক্তিকে দেখা যায়। সে সূত্র ধরেই মূলত ডাকাত দলের সন্ধান মেলে। খুঁড়িয়ে হাঁটা ওই ব্যক্তিকে দেখে আমরা খোঁজ নেওয়া শুরু করি। এক পর্যায়ে জানা যায় ওই ব্যক্তির নাম সাইফুল। এর সূত্র ধরে গত সোমবার উপজেলার গহিরা এলাকা থেকে মুছাকে গ্রেফতার করে সাত লাখ উদ্ধার করা হয়। তার স্বীকারোক্তিতে সাইফুল এবং অন্যদের গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও জানান, সরোয়ারের বাড়িতে ডাকাতির প্রস্তাব দেন সাইফুল। সে বিভিন্ন সময়ে চুরি, চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রিসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত ছিলেন।  সাইফুলই এক লাখ টাকার বিনিময়ে কাজলকে ডাকাতির জন্য একটি বাড়ি ঠিক করে দেওয়ার কথা বলেন। কাজল তাকে সরোয়ারের দেশে আসা এবং ওই রাতে বাড়ির সবার বেড়াতে যাওয়ার তথ্য দেন।

তিনি জানান, গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে ৪৬ ভরি স্বর্ণ এবং ৩০ লাখ ১ হাজার ৬০০ টাকা জব্দ করা হয়। তবে ডাকাতির সঙ্গে জড়িত এমরান নামে একজন পলাতক রয়েছে। গ্রেফতার আসামিদের আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

বাংলাধারা/আরএইচআর