logo
লংগদুতে যুবকের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার
#

রাঙামাটি প্রতিনিধি »

রাঙ্গামাটির লংগদুতে বাবুল মিয়া (৪৫) নামে এক যুবকের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ( ২৪ নভেম্বর) সকালে মক্তবে যাওয়া কোমলমতি শিশুদের দেওয়া তথ্যমতে এলাকার সাধারণ মানুষ খবর পেয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে খবর দিলে তারা এসে লাশ উদ্ধার করে।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, বাবুল মিয়ার বাড়ি ৩ নং গুলশাখালী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের রহমতপুরে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার রাত ১২টা পর্যন্ত বাবুল মিয়া তার বোনের স্বামীর দোকানে খেলা দেখে বাসায় চলে যায়। তখন অন্যরাও বাসায় ফেরার সময় স্থানীয় কয়েকজন নুরুল ইসলাম নামে এক যুবককে তার বাসার দিকে যেতে দেখে। পরবর্তীতে ভোর আনুমানিক ৬টার দিকে মক্তবের বাচ্চারা রাস্তায় তার মৃতদেহ দেখে স্থানীয়দের জানায়।

বাবুল মিয়ার বোনের স্বামী ফুল মিয়ার কাছে নুরুল ইসলাম সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার জানামতে বাবুল মিয়া নুরুল ইসলামের নিকট প্রায় দুই লাখ টাকার মতো পেত। গত রাতেও সে তার বাসায় আসে বলে আমরা জানতে পারি।

এ বিষয় নুরুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে প্রথমে তিনি বলেন, আমার বাসা যুবলক্ষ্মী পাড়া। আমি এতো দূর থেকে রাতে ওনার বাসায় কেন যাবো। আমি রাতে আমার বাসায় জলপাইয়ের বস্তা প্যাকিং করছিলাম।

কিন্তু তাকে ঘটনাস্থলে দেখেছে এমন বেশ কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শীর সাথে কথা বলার সময় নুরুল ইসলাম এসে বলেন, স্যার, আমি তখন মিথ্যা বলেছিলাম। আমি গতকাল রাত ১২টার সময় কিছু টাকার জন্য তার বাসায় গিয়েছিলাম। কিছুক্ষণ পর তার কাছ থেকে আমি ৫০০০ টাকা নিয়ে চলে আসি।

গুলশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। এ বিষয়ে এখনও বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না। পুলিশ আসছে, তদন্তের পর বিস্তারিত বলা যাবে।

এ ঘটনায় লংগদু থানার বাঘাইছড়ি সার্কেল সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল আওয়াল চৌধুরী, তদন্ত ওসি সানজিদ আহমেদসহ লংগদু থানার একটি টিম ঘটনাস্থলে এসে বিষয়টি নিশ্চিত করে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে গেছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নুরুল ইসলামকে হেফাজতে নেয় পুলিশ।