গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার নিবন্ধিত। রেজি নং-০৯২

রেজিঃ নং-০৯২

ফেব্রুয়ারি ২, ২০২৩ ৬:২৫ অপরাহ্ণ

ইনোভেটিভ ফার্মা’র মালিকসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা

বাংলাধারা প্রতিবেদক »

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ফেইক আইডি’তে কোম্পানির বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও হুমকিসহ বিভিন্ন অভিযোগ এনে ইনোভেটিভ ফার্মার স্বত্ত্বাধীকারী কাজী মোহাম্মদ শহিদুল হাসানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা করেছেন এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’র সিনিয়ির ম্যানেজার মো. রফিক আহমদ।

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে (জেলা ও দায়রা জজ) এই মামলা দায়ের করে এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’র সিনিয়র ম্যানেজার মো. রফিক আহমদ।

মামলায় অভিযুক্তরা হলো— ইনোভেটিভ ফার্মার স্বত্ত্বাধীকারী কাজী মোহাম্মদ শহিদুল হাসান (৪২), মো. জাহিদুল করিম ওরফে রিমন (৩০), মো. শওকত আলী ওরফে রিফাত (২৯), কাজী মোহাম্মদ রুবাইদুল হাসান (৩৫) ও কামাল হোসাইন (৩৮)।

জানা যায়, সময়মত চেকের টাকা পরিশোধ না করায় ইনোভেটিভ ফার্মার স্বত্ত্বাধীকারী কাজী মোহাম্মদ শহিদুল হাসানের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেন এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’র সিনিয়র ম্যানেজার মো. রফিক আহমদ। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে এলবিয়ান গ্রুপ’র বিরুদ্ধে উদ্দেশ্য ও ষড়যন্ত্রমূলক সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ফেইক আইডি’তে ও নগরীর বিভিন্ন জায়গায় পোস্টারিং করে অপপ্রচার ও হুমকির অভিযোগ উঠে শহিদুল হাসানের বিরুদ্ধে। পরে এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ রাইসুল উদ্দিন নগরীর পাঁচলাইশ থানায় সাধারণ ডায়েরি করলে উল্টো প্রতারণা, চুক্তিভঙ্গসহ একাধিক ‘ভিত্তিহীন’ অভিযোগ এনে মামলা করেছেন বলে অভিযোগ তুলেন এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’র ম্যানেজার মো. রফিক আহমদ।

YouTube player

মামলা সূত্রে জানা যায়, ইনোভেটিভ ফার্মার স্বত্ত্বাধীকারী কাজী মোহাম্মদ শহিদুল হাসান এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড থেকে নগদ টাকা ও বাকীতে ওষুধ ক্রয় করতেন। লেনদেনের ধারাবাহিকতায় ওষুধ ক্রয় বাবদ পাওনা হলে এলবিয়ান ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’কে তিন কোটি পঞ্চান্ন লাখ টাকার ৫টি চেক দেন শহিদুল হাসান। কিন্তু সেই চেকের টাকা সময়মতো পরিশোধ করতে ব্যর্থ হলে এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’র ম্যানেজার মো. রফিক আহমদ চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে শহিদুল হাসানের বিরুদ্ধে পৃথক ৫টি মামলা করেন। এই মামলায় জামিনের পর শহিদুল হাসান এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’র বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র, অপপ্রচার ও হুমকি দিতে থাকে। এতে পাঁচলাইশ থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ রাইসুল উদ্দিন। সর্বশেষ হুমকি, অপপ্রচার ও সময়মতো টাকা পরিশোধ না করাসহ বিভিন্ন অভিযোগ এনে ইনোভেটিভ ফার্মার স্বত্ত্বাধীকারী কাজী মোহাম্মদ শহিদুল হাসানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’র সিনিয়ির ম্যানেজার মো. রফিক আহমদ।

এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড’র সিনিয়র ম্যানেজার মো. রফিক আহমদ বলেন, এটি আমাদের কোম্পানির চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র। এটি মূলত তারা নিজেদের প্রতারণা ঢাকতে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার। এ নিয়ে আমরা মহামান্য আদালতে মামলা দায়ের করেছি।

অভিযোগ রয়েছে, ইনোভেটিভ ফার্মার স্বত্ত্বাধীকারী কাজী মো. শাহদিুল হাসান ২০০৫ সালে সান ফার্মা নামে একটি ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতষ্ঠানে মার্কেটিং রিপ্রেজেন্টেটিভ পদে কর্মজীবন শুরু করে। এখানে বেশ কিছুদিন চাকরি করলেও অনৈতিক কর্মকাণ্ডের কারণে সান ফার্মা থেকে চাকরিচ্যুত হয়।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on telegram
Telegram
Share on skype
Skype
Share on email
Email

আরও পড়ুন

অফিশিয়াল ফেসবুক

অফিশিয়াল ইউটিউব

YouTube player